রাজস্ব ফাঁকিতে সরকার, লাভবান অসাধু ব্যবসায়ীরা

স্বীয় দেশের সরকার বহুপন্থার রাজস্ব ফাঁকিতে রয়েছে, অন্যদিকে বহুলাংশে লাভবান হচ্ছে অধিকাংশেরও বেশী অসাধু ব্যবসায়ীরা!!

জানা-যায় দেশের সকল খেলাধুলা সরঞ্জামাদি তৈরি করণ কোম্পানি গুলো বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক ব্যবসায়ীক পণ্যের বিক্রয় মূল্যের উপর আরোপ করা মূল্য সংযোজন কর বা মূষক, আদায়ে দায়িত্বে থাকা যথা-যথ কর্তৃপক্ষের চোখ ফাঁকি দিয়ে অদ্যবধী এমন ব্যবসায়ীরা দাপিয়ে ব্যবসা করে যাচ্ছে। এতে যেমন সরকারের মূলতঃ আয় রাজস্ব ফাঁকি দিচ্ছে তারা, তেমনি পণ্যের গায়ে বিক্রয় মূল্য না থাকায় চরমভাবে দুর্ভোগেও পড়তে হচ্ছে ভোক্তাদের।

জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে আরাম নগর বাজারস্থ একটি খেলাধুলা পণ্যের দোকানে প্রত্যেকটি পণ্যে (ক্রিকেট ব্যাট, রেকেড়, ফুটবল, ফ্যাদার) মূল্য না থাকার হেতু সরকারের রাজস্ব ফাঁকির বিষয়ে এমন তথ্য উপাত্ত উঠে এসেছে।

জানা-যায় সকল কোম্পানির পণ্যে বিক্রয় মূল্যের উপর ভিত্তি করে সরকার রাজস্ব নির্ধারণ করে থাকেন। অথচ দেখা যাচ্ছে বহুকাল ধরে খেলাধুলা সরঞ্জামাদি পণ্যে কোন প্রকার মূল্য লেখা নেই। বহুপন্থার রাজস্ব ফাঁকির মধ্যে দেশের খেলাধুলা সরঞ্জামাদি পণ্যে বিক্রয় মূল্য লেখা না থাকায় বাংলাদেশ সরকার বহুলাংশে রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। অতঃপর প্রান্তিক এলাকা সহ দেশের নগরীর (সহর) সকল দোকানদার যারা বিক্রয় মূল্য বিহীন পণ্য বিক্রি করছে, সে সকল দোকানদার সরকারের রাজস্ব বিষয়ে উদাসিন হয়ে নিজের পকেট ভারির অসৎ ইচ্ছায় অবৈধ পণ্য বিক্রির বৈরী কৌশল সরকারের রাজস্ব ফাঁকির বিষয়টি সর্বসাকুল্যে অন্তরালেই থেকে যাচ্ছে।

জানা-যায় আরাম নগর বাজারস্থ সরিষাবাড়ী মাহমুদা সালাম মহিলা কলেজ মোড়, সুজন খেলা ঘরে খেলাধুলা পণ্য রেকেট ক্রয় করতে গিয়ে তাদের দৃষ্টি গোচর হয় প্রত্যাকটি খেলাধুলা পণ্যে বিক্রয় মূল্য নেই। অতঃপর দোকানদার মনগড়া ভাবে পণ্যের মূল্য মাত্রাতিরিক্ত নেওয়ায়‌ তারা দেখতে পায় ক্রেতাদের মাঝে সৃষ্টি হচ্ছে এক ধরণের মিশ্র প্রতিক্রিয়া। তাই এমন ভোক্তাদের দুর্ভোগ লাঘবে জেলার ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের হস্তক্ষেপ সমেত তাদের (দোকানদার) অপ্রত্যাশিত অর্থ আয়ের উপর জামালপুর জেলার আয় করের আওতায় আনাও প্রয়োজন বলে মনে করছেন গুণীমহল। সরকারকে রাজস্ব ফাঁকি দেয় এমন পণ্য বিক্রি, সুজন খেলা ঘর সহিত সরিষাবাড়ীর অন্যান্য দোকানদার কর্তৃক মূল্যবিহীন পণ্য বিক্রির বহুগুণ লভ্যাংশ অর্থের আয়কর ফাঁকি দেওয়ার বিষয়টি বাংলাদেশ, জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (NBR) কে শুভ দৃষ্টির আদলে দেখভালের জন্য আহ্বান জানিয়েছেন অনুসন্ধিৎসু সাংবাদিক গবেষক মহল।

"স্বাধীনতার মহান স্থপতির এক (০১) আদর্শের" তত্ত্বীয় গবেষণাগার কর্তৃক সত্য প্রকাশে বিশ্বস্ত একটি অনলাইন পোর্টাল 'দৈনিক তরঙ্গ বার্তা'