সরিষাবাড়ীতে লালুর হোটেলের রুটি খেয়ে লালু সহ অসুস্থ প্রায় ৬০ জন

জামালপুরে সরিষাবাড়ীতে খাবার হোটেলের ডাল রুটি খেয়ে হোটেল মালিক লালু সহ অসুস্থ্য হয়ে পড়েছে অর্ধশতাধিকের উপরে এবং আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে তৎক্ষনাৎ ভর্তি হয় ২২ জন বলে সংবাদ পাওয়া যায়।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা যায়, সরিষাবাড়ী পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ডের পঞ্চপীর এলাকা হতে সন্ধ্যা ৬.৩০ মিনিটের দিকে ডাইরিয়া, বমি ও বুকজ্বালা নিয়ে এ সকল রোগী ভর্তি হয়। এদের মধ্যে কয়েকজন ৫-১০ বছর বয়সী শিশুরাও রয়েছে ।

সোমবার (৭ জুন) সকালে পঞ্চপীর বাজার মোড়ে মৃত আবুল হোসেনের ছেলে লালু মিয়ার হোটেলে ডাল রুটি খাওয়ার পর থেকেই লোকজন অসুস্থ্যতা বোধ করে এবং দুপুরের পর থেকে পর্যায়ক্রমে এলাকার মধ্যে অর্ধশতাধিকের উপরে লোক ডায়রিয়া রোগে আক্রান্ত হয়। যাদের মধ্যে ২২ জন আশংকা জনক থাকায় দ্রুত সরিষাবাড়ী হাসপাতালে ভর্তি হয় এবং পর্যায়ক্রমে আরো ভর্তি হতে থাকে।

এ ঘটনায় এলাকায় জনগণের মধ্যে এক ধরনের আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। অনেকেই বলছেন লালু মিয়ার হোটেল খুবই অপরিস্কার অপরিচ্ছন্ন ও নোংরা। সে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার তৈরী করে এবং পরিবেশন করে। তাকে এব্যাপারে এলাকাবাসী ইতিপূর্বেও সতর্ক করেছে কিন্তু সে কারও কোন কথাই শুনেননি বরং উল্টো নানান কথা শুনিয়ে দেয় বলে জানা-যায়। তাই এলাকাবাসী চাচ্ছেন যত্রতত্র গড়ে উঠা অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে চা স্টল ও খাবার হোটেল গুলো প্রশাসনিকভাবে বন্ধ করে দেওয়া হোক।

এই সময় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত মেডিকেল অফিসার ডাঃ সারজিয়া হাসান মিথীর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘অস্বাস্থ্যকর ও নোংরা পরিবেশে খাবার খাওয়ার কারণে তারা অসুস্থ হয়ে পড়ে। তাই অস্বাস্থ্যকর ও নোংরা সমেত ভেজাল খাদ্য রোধে যথাযথ কর্তৃপক্ষকে দেখ ভালের আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

"স্বাধীনতার মহান স্থপতির এক (০১) আদর্শের" তত্ত্বীয় গবেষণাগার কর্তৃক সত্য প্রকাশে বিশ্বস্ত একটি অনলাইন পোর্টাল 'দৈনিক তরঙ্গ বার্তা'