চাপারকোনা মহেশ চন্দ্র উচ্চ বিদ‍্যালয়ের মাদক বিষয়ক নিউজে স্থীরচিত্রের সম্পৃক্ততায় বিভ্রম

জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে চাপারকোনা মহেশ চন্দ্র উচ্চ বিদ‍্যালয়ে মাদক বিষয়ক নিউজে স্থীরচিত্রের সম্পৃক্ততায় অপ্রাসঙ্গিক বলে জানিয়েছেন ঐ স্থিরচিত্রে উপস্থিত ভুক্তভোগী সকল ছাত্রবৃন্দ । গত ১৭ অক্টোবর তারিখে ‘দৈনিক তরঙ্গবার্তা’ ডটকমে প্রকাশিত চাপারকোনা মহেষ চন্দ্র উচ্চ বিদ‍্যালয়ে মাদকব‍্যবসায়ী ও মাদক সেবীদের অভয়াশ্রম শিরোনামের নিউজটিতে ধৃতকৃত আসামীর ছবির সাথে আরেকটি বহু সংখ‍্যক লোকের আড্ডাকৃত ছবিটির সম্পৃক্ততা নেই বলে অভিপ্রায় ব‍্যক্ত করেছেন তারা।

জানা-যায় আড্ডাকৃত ছবিটির ছেলেপেলে গুলো সকলেই ঢাকা বিশ্ববিদ‍্যালয় সমেত এদেশের নানান বিশ্ববিদ‍্যালয়ে পড়ুয়া শিক্ষার্থী। তারা ছুটির সময় যখন (শিক্ষার্থী) বাড়ীতে আসেন তখন অবসর সময় কাটানোর জন‍্য প্রাইমারি ও উচ্চবিদ‍্যালয় পড়ুয়া ছোট বেলার তথা বাল‍্যবন্ধুদের সমন্বয় হওয়ার স্থান ঐ স্কুলটি বলে জানান তারা।

তাদেরকে (শিক্ষার্থী) এমন বাজে জায়গায় আড্ডা দেয়ার বিষয়ে এই প্রতিবেদক জানতে চাইলে তাদের মধ‍্য থেকে একজন বলেন, ‘আমরা এই স্কুল থেকেই পড়াশোনা শুরু করি; এই স্কুলের সাথে বাল‍্যকালের স্মৃতিচারনের সম্পৃক্ততা রয়েছে তাই নাড়ীর টানে এখানে আসি। অতঃপর তিনি আরো বলেন, ‘আমি মনে করি জায়গার কোন দোষ নেই, দোষী হচ্ছে তারা যারা এই স্থানে আসন করে মাদক সেবন করে। এখানে যারা এমন অসামাজিক কাজে লিপ্ত রয়েছে মূলত দোষী তারাই বলে আমি মনে করছি’।

এ বিষয়ে ঐ শিক্ষার্থীদের অভিভাবক আব্দুস সামাদ, লিয়াকত আলী, রুকনুজ্জামান খোকা তাদের কাছে জানতে চাইলে তন্মধ‍্যে আব্দুস সামাদ বলেন, ‘অনেক ভালো জায়গা এখন; ভালোর বিপরীতে খারাপ হয়ে গেছে তার প্রমান শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এখন মাদকের অভয়াশ্রম। আমি বাচ্চা কাচ্চাদের বলব তোমরা এখন বাহিরে থেকে লেখা পড়া করো এই জন‍্য এলাকাই কোন জায়গাটি খারাপ আর কোন জায়গাটি ভালো তা জেনে শুনে আড্ডা সমেত যেকোন কাজ করার আশাবাদ ব‍্যক্ত করছি’।

"স্বাধীনতার মহান স্থপতির এক (০১) আদর্শের" তত্ত্বীয় গবেষণাগার কর্তৃক সত্য প্রকাশে বিশ্বস্ত একটি অনলাইন পোর্টাল 'দৈনিক তরঙ্গ বার্তা'