সরিষাবাড়ীতে বক্তব্য প্রদান করতে না পারায় আওয়ামীলীগ নেতা’কে মারপিট

সভাপতি ছানোয়ার হোসেন বাদশা বললেন এমন অপ্রীতিকর ঘটনা ক্ষমার অযোগ্য

ছবিঃ ওয়াজেদ আলী

জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে সভার মঞ্চে বক্তব্য প্রদান করতে না দেয়ায় গায়ে হাত তোলার বিষয়ে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক বরাবর জয়নাল আবেদীন লিখিত আকারে অভিযোগ করেছেন বলে জানা-যায়।

গত শুক্রবার (১৬ অক্টোবর) জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলার সাতপোয়া ইউনিয়নের চর সরিষাবাড়ীতে আর সি সি গার্ডার ব্রীজ ও যমুনা শাখা নদীর উপর পি এস সি গার্ডার ব্রীজ নির্মান কাজের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন উপলক্ষে তথ‍্য প্রতিমন্ত্রী আলহাজ ডাঃ মুরাদ হাসান প্রধান অতিথির আসনটিতে উপবিষ্ট থাকা আলোচনা সভার, সমাবেশ শেষে এমন ঘটনা ঘটে। 

এ ঘটনায় ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা- কর্মীদের মাঝে চরমভাবে ক্ষোভ সৃষ্টি হয়েছে বলে জানা-গেছে। এ বিষয়ে ভুক্তভোগী জয়নাল আবেদীনের (সাধারণ সম্পাদক, সাতপোয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ) কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আলোচনা সভা শেষে প্রধান অতিথি তথ্য প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব ডাঃ মোঃ মুরাদ হাসান সভার মঞ্চ ত্যাগ করার পর যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ওয়াজেদ আলী আমি বক্তব্য দিতে দেইনি বলে অভিযোগ করেন। অতঃপর বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে ওয়াজেদ আলী আমাকে অতর্কিত মাইরপিট করে এবং ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়।

এ ব্যাপারে সাতপোয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ওয়াজেদ আলী’র নিকট মুঠোফনে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বিষয়টি সম্পূর্ণ ভূয়া ও ভিত্তিহীন বলে দাবি করেন।

অতঃপর বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ সরিষাবাড়ী উপজেলা শাখার সভাপতি মহান স্থপতির আদর্শিক মতাদর্শে থাকা আলহাজ ছানোয়ার হোসেন বাদশা তাঁর কাছে এমন অপ্রীতিকর বিষয়টি সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ ঘটনায় আমি সমেত জামালপুর জেলা আওয়ামীলীগের লজ্জা। এমন বৈরীতা ক্ষমার অযোগ‍্য।

"স্বাধীনতার মহান স্থপতির এক (০১) আদর্শের" তত্ত্বীয় গবেষণাগার কর্তৃক সত্য প্রকাশে বিশ্বস্ত একটি অনলাইন পোর্টাল 'দৈনিক তরঙ্গ বার্তা'