অনলাইনে টিকিট নাই, যাত্রাকালীনে দেখা যায় চার ভাগের তিন ভাগ সিট’ই ফাঁকা

স্মার্ট ফোন কম থাকা বা অনলাইনের বিষয়ে অজ্ঞতাই এর মূল কারণ বলে জানালেন সরিষাবাড়ীর স্টেশন মাস্টার

বিঃ যাত্রাকালীন ময়মনসিংহ হতে তোলা 

সরিষাবাড়ী থেকে ঢাকা যাওয়ার আন্তঃনগর অগ্নিবীণার ট্রেনের টিকিট অনলাইনে পাওয়া না গেলেও, যাত্রাকালীনে দেখা যায় ট্রেনের চার ভাগের তিন ভাগ সিট’ই ফাঁকা।

জানা যায়, অনেক দিন যাবৎ সারাদেশের ন্যায় সরিষাবাড়ী থেকে ঢাকা যাওয়ার রেল যোগাযোগ বন্ধ থাকার পর সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক স্বাস্থ্যবিধি মেনে পুণরায় চলাচল শুরু করে। বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধ করতেই অন্যান্য দেশের মতো সামাজিক দূরত্ব মেনে দেশের এক জায়গা হতে অন্য জায়গায় ট্রেন চলাচলের নির্দেশ দিয়েছিলেন সরকার। তাছাড়া করোনা মহামারীর মধ‍্যে সম্প্রতি জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে চরম ভাবে বন‍্যা পরিস্থিতি অবনতি হওয়ায় ট্রেন চলাচল দির্ঘদিন বন্ধ থাকে। অতঃপর বন‍্যা পরিস্থিতি উন্নত হওয়ায় গত ১৬ আগস্ট হতে নির্ধারিত সময়ে ট্রেন চলাচল শুরু হয়।

জানা যায় সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে ট্রেনের টিকিট একশত ভাগের পঞ্চাশ ভাগ অনলাইনে বিক্রির নির্দেশনা দিয়েছেন দেশটির সরকার। গত ২১’শে আগস্টে ঢাকা গামী অগ্নিবীণা ট্রেনে (চ) বগিতে ৬০ টি সিটের মধ‍্যে প্রায় ৪৫ টি সিট ফাঁকা থাকায় তথ‍্য উপাত্ত সংগ্রহকারী বিভ্রমে থাকে কারণ সে নিজেও টিকিট না পাওয়া একজন ভূক্তভোগী। অতঃপর এই বিষয়ে যাত্রীদের কাছে জানতে চাইলে তাঁরা বলেন, আমরা এই ট্রেনে এমনও যাত্রী আছি সপ্তাহে প্রায় দুই দিন ঢাকা আপ-ডাউন করে থাকি। করোনা প্রাদূর্ভাবের আগে এই ৬০ টি সিটের প্রার্থী নূন‍্যতম ৩০০ জন থাকতো তৎসময় অনেক দূর্ভোগের পর বহু পন্থার পদচারনায় টিকিট ব‍্যবস্থা করতে হতো আর এখন একটি বগির ৬০ টি সিটের মধ‍্যে সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ি একশত ভাগের পঞ্চাশ ভাগ হলে ৬০টি সিটের অর্ধেক ৩০ টি সিটের পূর্ণতা থাকবে। কিন্তু, অনলাইনে টিকিট নাই আবার প্রত‍্যেক বার যাত্রার সময় দেখতে পাচ্ছি বগির মধ‍্যে প্রায় চার ভাগের তিন ভাগ সিট ফাঁকা ।

এ বিষয়ে ষ্টেশন মাস্টার আব্দুর রাজ্জাক তাঁর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, স্মার্ট ফোন কম থাকায় বা অনলাইনের বিষয়ে অজ্ঞ থাকার জন‍্য সম্পূর্ণ টিকিট কালেকশণ করতে পারেনা বলে জানান তিনি।

"স্বাধীনতার মহান স্থপতির এক (০১) আদর্শের" তত্ত্বীয় গবেষণাগার কর্তৃক সত্য প্রকাশে বিশ্বস্ত একটি অনলাইন পোর্টাল 'দৈনিক তরঙ্গ বার্তা'