বন্যায় পাটের ব্যাপক ক্ষতি হতাশায় যমুনা পাড়ের কৃষক

গত কয়েক সপ্তাহে যমুনার পানির আকস্মিক বৃদ্ধিতে জামালপুরের সরিষাবাড়িতে ভয়াবহ বন্যার আকার ধারন করে। যার ফলে কয়েক হাজার হেক্টর ফসলি জমি বন্যার পানিতে প্লাবিত হয় এবং ক্ষতিগ্রস্ত হয় কয়েক হাজার কৃষক।

সরিষাবাড়ির পোগলদিঘা একটি জনবহুল গ্রাম, এ গ্রামের প্রায় ৮০ ভাগ লোক সরাসরি কৃষি কাজের সাথে জড়িত। গ্রামটি যমুনার কোল ঘেষে হওয়ায় আবাদি জমি গুলো নদী তীরবর্তী ফলে প্রতিবছর বন্যার পানিতে ফসলগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

সরেজমিন ঘুরে ও স্থানীয় কৃষকদের সাথে কথা বলে জানা যায়,বর্ষা মৌসুমে তাদের আবাদযোগ্য ফসলের মধ্যে অন্যতম হচ্ছে পাট,রবি মৌসুমে বিভিন্ন ফসলের পরেই তারা পাট রোপন করে থাকেন। এবারো যতানিয়মেই তারা পাট রোপন করে কিন্তু এসব পাট পরিপক্ব হওয়ার আগেই যমুনার পানির আকস্মিক বৃদ্ধিতে তা তলিয়ে যায় যাতে কয়েক হাজার হেক্টর পাট নদীর গর্ভে বিলীন হয়ে যায়। কিছু ফসল কাটা গেলেও তা লাভের মুখ দেখাবে না তাই পাট এবার তাদের ক্ষতির মুখ দেখাবে বলে মন্তব্য করছেন পাট চাষীরা।

তাই এসব ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকরা সরকারি সহায়তার দাবী জানিয়েছে।

"স্বাধীনতার মহান স্থপতির এক (০১) আদর্শের" তত্ত্বীয় গবেষণাগার কর্তৃক সত্য প্রকাশে বিশ্বস্ত একটি অনলাইন পোর্টাল 'দৈনিক তরঙ্গ বার্তা'