পাট-শিল্প বন্ধে শ্রমিকদের বিক্ষোভ

দেশের ২৫ টি রাষ্ট্র্রয়াত্ত পাট শিল্প বন্ধের ঘোষনা দিয়েছেন সরকার যার প্রতিবাদে খুলনাসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় পাট শিল্পের শ্রমিকরা বিক্ষোভ করেছেন।

বিগত কয়েক বছর যাবত পাট শিল্পে সমস্যা লেগেই আছে তার মধ্যে সরকার ঘোষণা দিলেন ২৫ হাজার শ্রমিক কে ছুটিতে পাঠাতে তাই কাজের দাবিতে তাদের বিক্ষোভ।

শ্রমিকরা বলছেন করোনা মহামারীতে তারা এমনেই খুব কষ্টে দিনপাত করছেন এর মধ্যেই এরকম একটি ঘোষনা তাদের জন্য নিদারুন কষ্টের তাই তারা তাদের কর্মে ফিরে যাওয়ার জন্য বিক্ষোভ করছেন।

এদিকে শ্রম প্রতিমন্ত্রী মন্নুজান সুফিয়ান বলেছেন পরবর্তীতে পাট শিল্পের উন্নয়নের মাধ্যমে এসব শ্রমিকদের কর্মে ফিরিয়ে আনা হবে এবং তাদের বকেয়া টাকা আগামী ১লা সেপ্টেম্বর থেকে বিতরণ করা হবে বলে এক প্রেস কনফারেন্সে শ্রমিক নেতাদের আতস্ত করেছেন।

শ্রমিক নেতারা বলছেন প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া সিদ্ধান্তের সাথে দ্বিমত প্রকাশ কোন ক্ষমতা আমদের নেই তাই আপাদত পাট শিল্প বন্ধের সিদ্ধান্ত অটুট থাকবে।

বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের সভাপতি শহিদুল্লাহ চৌধুরী বলেন, এটা আমলাদের ষড়যন্ত্র। সরকারি পাটকল লুটেপুটে খাওয়ার কৌশল। সরকারি পাটকল বন্ধ হলে এর শ্রমিকরা ভয়াবহ বিপদে পড়বেন এবং এর প্রভাবে বেসরকারি খাতে শ্রমিক ছাঁটাই শুরু হবে।

"স্বাধীনতার মহান স্থপতির এক (০১) আদর্শের" তত্ত্বীয় গবেষণাগার কর্তৃক সত্য প্রকাশে বিশ্বস্ত একটি অনলাইন পোর্টাল 'দৈনিক তরঙ্গ বার্তা'