সরিষাবাড়ীতে প্রাইভেট পড়ানোর অভিযোগে শিক্ষককে অর্থদণ্ড ভ্রাম্যমাণ আদালতের

জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে করোনা কালীন সময় প্রাইভেট পড়ানোর অভিযোগে ভ্রাম্যমাণ আদালতে অর্থদণ্ডে দণ্ডিত করেছেন এক প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক কে।

উক্ত ঘটনাটি ঘটেছে সরিষাবাড়ী উপজেলা পরিষদ চত্বর এলাকায়। গত ১৭ জুন বুধবার দুপুরে সরিষাবাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার শিহাব উদ্দিন আহমদ ভ্রাম্যমান অভিযান চালান উপজেলা চত্বরে বসবাসরত শিক্ষক নিয়ামুল নাছির মিন্টু ভূঁইয়ার বাসায় এবং প্রাইভেট পড়ানো কালীন হাতে-নাতে ধরে ফেলেন এই শিক্ষককে।

জানা গেছে, উপজেলা কামরাবাদ ইউনিয়নের বড়বাড়িয়া গ্রামে আব্দুল মালেক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক এবং উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক তিনি। শিক্ষক মিন্টু ভূঁইয়া সরকারি আদেশ অমান্য করে স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব না মানায়, ভ্রাম্যমাণ আদালত ৮ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন।

এই বিষয়ে সমাজের সচেতন মহল বলছেন, শিক্ষকদের এমন জ্ঞানহীন কর্মকান্ড জাতিকে স্তম্ভিত ও মর্মাহত করে। যারা শিক্ষার আলো দিয়ে আলোকিত করবেন এই দেশ ও সমাজকে।আজ তারাই যদি পৃথিবীর এমন ভয়ঙ্কর পরিস্থিতিতে আগামী ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেন, তাহলে এটা সত্যিই অমানবিকতা ছাড়া আর কিছু নয়। শিক্ষা জীবনের নিরাপত্তার চেয়ে অধিক মূল্যবান নয় বলে অনেকেই মন্তব্য করেন।

"স্বাধীনতার মহান স্থপতির এক (০১) আদর্শের" তত্ত্বীয় গবেষণাগার কর্তৃক সত্য প্রকাশে বিশ্বস্ত একটি অনলাইন পোর্টাল 'দৈনিক তরঙ্গ বার্তা'