বড়দের কাছ থেকে বেয়াদবি শিখে বেয়াদবি করছেন নোবেল

ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই বিতর্কিত সব মন্তব্য করে নিজেকে সমালোচিত করেছেন তিনি

বিতর্ক আর নোবেল যেন একে অপরের পরিপূরক। ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই বিতর্কিত সব মন্তব্য করে নিজেকে সমালোচিত করেছেন তিনি।

কখনো দেশের সিনিয়র শিল্পীদের তুচ্ছতাচ্ছিল্য করা, কখনো ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য আবার কখনো নিজের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় বিতর্কিত পোস্ট। নেটদুনিয়ায় নানা কীর্তিকলাপের জেরে বারবার আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে চলে এসেছেন বাংলাদেশের সংগীত শিল্পী মঈনুল আহসান নোবেল।

তবে তাতে সাবধান হননি তিনি। পরিবর্তে আবারও বিতর্কিত মন্তব্য করে বসলেন গায়ক। এবার তার দাবি, বেয়াদবি বড়দের কাছ থেকে শিখেছেন তিনি।

সম্প্রতি ‘তামাশা’ নামে সোলো মিউজিক অ্যালবাম রিলিজ করে তার। তবে সেই গানে সাড়া পড়েনি একদম। প্রশংসার চেয়ে সমালোচনাই হয়েছে বেশি। ভিডিওর নিচে নোবেলকে ‘বেয়াদব’ বলেও কটাক্ষ করেন নেটিজেনরা।

সেই ঘটনার পরই দিনকয়েক আগে বাংলাদেশের এক বেসরকারি চ্যানেলে একান্ত সাক্ষাৎকার দেন নোবেল। প্রশ্নোত্তর পর্ব চলাকালীন নেটিজনদের ‘বেয়াদব’ কটাক্ষ নিয়ে প্রশ্ন করা হয় তাকে। কথা বলতে গিয়ে ‘মাইলস’ ব্যান্ডের শিল্পী শাফিন আহমেদ ও ফুয়াদ আল মুক্তাদিরকে আক্রমণ করে বসেন।

তিনি বলেন, ‘আমি আর কি বেয়াদবি করেছি? শাফিন ভাই তার গান প্রকাশের আগে ফুয়াদ ভাইসহ অনেককেই গালিগালাজ করেছিলেন। আমি কিন্তু তাদের থেকে অনেক বেশি প্রচারের আলোয় এসেছি। কিন্তু আমার চেয়ে বেয়াদবি বেশি করছে ওনারা। আমি ভাই বেয়াদবি বড়দের কাছ থেকে শিখছি। আমাকে কিছু বলে লাভ নেই।’

জনপ্রিয় বাংলা টেলিভিশন চ্যানেলের রিয়ালিটি শো‘সারেগামাপা’র মঞ্চ থেকেই খ্যাতির শিখরে উঠতে শুরু করেছিলেন মঈনুল আহসান নোবেল। তবে শো পরবর্তী সময়ে গানের থেকে বেশি বিতর্কেই জড়িয়েছেন। কিংবদন্তিদের বিরুদ্ধে অশালীন মন্তব্য থেকে ধর্ষণের অভিযোগে বিতর্কে জড়িয়েছেন তিনি।

নরেন্দ্র মোদিকে ‘চাওয়ালা’ বলে সম্বোধন করে ফেসবুকে একটি পোস্ট করেন বাংলাদেশের এই জনপ্রিয় গায়ক। তা নিয়ে ওঠে সমালোচনার ঝড়। তার এমন কার্যকলাপ নজরে আসে র‍্যাবের। ব়্যাব ২ কার্যালয়ে ডেকে জেরাও করা হয় তাকে।

সূত্রঃ জাগো নিউজ২৪

"স্বাধীনতার মহান স্থপতির এক (০১) আদর্শের" তত্ত্বীয় গবেষণাগার কর্তৃক সত্য প্রকাশে বিশ্বস্ত একটি অনলাইন পোর্টাল 'দৈনিক তরঙ্গ বার্তা'