করোনার উপসর্গ নিয়ে সরিষাবাড়ীতে একজনের মৃত্যু

বুধবার ভোররাত ৪টার দিকে তিনি মারা যান

সরিষাবাড়ী (জামালপুর) প্রতিনিধি :

জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে বুধবার ভোরে নারায়নগঞ্জ থেকে ভগ্নিপতির বাড়িতে এসে সোলায়মান (৩৭) নামে এক গার্মেন্ট কর্মীর মৃত্যু হয়েছে। তিনি পার্শবর্তী মেলান্দহ উপজেলার ঝাউগড়া ইউনিয়নের ঘোষেরপাড়া গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে।

ভাটারা ইউপি চেয়ারম্যান ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, সোলায়মান নারায়গঞ্জের একটি পোশাক কারখানায় কাজ করতেন। দু’দিন আগে তিনি জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলার ভাটারা ইউনিয়নের ভেবলা গ্রামের আব্দুল হালিমের ছেলে বদর আলীর বাড়িতে আসেন। সোলায়মান সম্পর্কে বদর আলীর শ্যালক।

বুধবার ভোররাত ৪টার দিকে তিনি মারা যান। ঔই দিনই সকাল ১১টার দিকে সোলায়মানের দাফন সম্পন্ন করা হয়।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. গাজি রফিকুল হক জানান, মুত্যু বরণ করা ব্যক্তির সংস্পর্শে আসা ওই বাড়ির সবার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। তাদের সকলের নমুনা ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে নিয়ে করোনা পরীক্ষা করা হবে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার শিহাব উদ্দিন আহমদ জানান, মারা যাওয়া ব্যক্তির ভগ্নিপতির বাড়ি ও আশেপাশের কয়েকটি বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে। ইউপি চেয়ারম্যানের মাধ্যমে বাড়িগুলোর সদস্যদের কয়েকদিনের খাবার সরবরাহ করা হবে।

"স্বাধীনতার মহান স্থপতির এক (০১) আদর্শের" তত্ত্বীয় গবেষণাগার কর্তৃক সত্য প্রকাশে বিশ্বস্ত একটি অনলাইন পোর্টাল 'দৈনিক তরঙ্গ বার্তা'