শ্বশুড়বাড়িতে ঘুরতে এসে জামাই করোনা পজিটিভ

ঘাটাইল উপজেলার জামাই

লেখা ও ছবিঃ সংগৃহীত

টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে এক গার্মেন্টস কর্মী শ্বশুরবাড়িতে নমুনা দিয়ে নিজ বাড়িতে গিয়ে শুনতে পেলেন তিনি করোনা পজিটিভ। ঘটনাটি ঘটেছে ঘাটাইল উপজেলার লক্ষিন্দর ইউনিয়নের বাঘারা গ্রামে। এ ঘটনায় ঘাটাইলে শ্বশুর বাড়ির তিনটি বাড়ি লকডাউন ঘোষণা করেছেন স্থানীয় উপজেলা প্রশাসন।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সাইফুর রহমান খান বলেন, গত ২৪ মে রাতে উপজেলার লক্ষিন্দর ইউনিয়নের বাঘারা গ্রামের আ. ছামাদ নামে এক ব্যাক্তি করোনা পজেটিভ হওয়ার তথ্য প্রেরণ করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। এই ব্যাক্তি গত ১৯ মে ঘাটাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনার উপসর্গ দেখা দিলে পরীক্ষার জন্য নমুনা প্রদান করেন।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও এলাকাবাসীর কাছ থেকে জানা যায়, সে ঘাটাইল উপজেলার বাঘারা গ্রামের আহম্মদ আলীর মেয়ের জামাই। সে সিরাজগজ্ঞ জেলার বেলকুচি উপজেলার জোকনালা ইউনিয়নের ভাঙ্গাবাড়ি গ্রামের গোলাম মোস্তফার ছেলে। সাভারের বাইপাইল এলাকার একটি গামেন্টে চাকরি করেন তিনি। ঢাকা থেকে ফিরে তিনি শ্বশুর বাড়িতে অবস্থান করছিলেন।

গত ১৯ মে তিনি ঘাটাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা দিয়ে নিজ বাড়ি সিরাজগঞ্জে চলে যান। বাড়িতে অবস্থান কালেই তিনি করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর পায় আব্দুস ছামাদ।

খবর পেয়ে স্থানীয় উপজেলা প্রশাসন তার সংস্পর্শে আসায় তার শ্বশুরবাড়িসহ আশেপাশের তিন বাড়ি লকডাউন ঘোষণা করে।

"স্বাধীনতার মহান স্থপতির এক (০১) আদর্শের" তত্ত্বীয় গবেষণাগার কর্তৃক সত্য প্রকাশে বিশ্বস্ত একটি অনলাইন পোর্টাল 'দৈনিক তরঙ্গ বার্তা'